জাতীয়

অল্পের জন্য রক্ষা পেল নভোএয়ার!

অল্পের জন্য রক্ষা পেল নভোএয়ার!






সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণের সময় নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটের (VQ-967) নোজ হুইল (সামনের চাকা) ফেটে গেছে। এতে বিমানবন্দরে সব ধরনের ফ্লাইট উঠানামা বন্ধ রয়েছে।



বুধবার নভোএয়ারের ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে উড্ডয়ণ করে সৈয়দপুর বিমানবন্দর রানওয়েতে সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটে অবতরণকালে সামনের চাকা ফেটে যায়। এ অবস্থায় ফ্লাইটটি রানওয়েতে থেমে যায়। সৈয়দপুরগামী ৬৭ জন যাত্রী নিয়ে অবতরণ করছিল ফ্লাইটটি।



এ ঘটনার পরপরই বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট অবতরণ না করে যাত্রীসহ ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। অপরদিকে, রানওয়ে বন্ধ থাকায় ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইট ঢাকা থেকে উড্ডয়ণ করেনি।



বিমানে থাকা মোস্তাক আহমেদ রঞ্জু নামে এক যাত্রী ঢাকা পোস্টকে বলেন, নভোএয়ার এয়ারলাইন্সের একটি বিমান আনুমানিক ৬টা ৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে সৈয়দপুরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। ৬টা ৫২ মিনিটে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করার সময় রানওয়ের ওপর বিমানটির সামনের চাকা হঠাৎ করে ফেটে যায়।



এতে বিমানের ভেতরের যাত্রীরা ভীত হয়ে পড়ে। পরে আমিসহ আমার সঙ্গে থাকা আরেকজন যাত্রী ইমারজেন্সি পয়েন্ট দিয়ে বের হই। পরে একে একে অন্য যাত্রীরাও বিভিন্নভাবে নেমে পড়ে। এতে অনেক যাত্রী হাঁটু ও কোমরে ব্যথা পায়। আমি নিজেও কোমরে প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছি। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে আসে এবং যাত্রীদের নিরাপদে নিয়ে যায়।



জাহেদুল ইসলাম নামে আরেক যাত্রী জানান, বড় ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা পেয়েছি। প্রচণ্ড ভয় পেয়েছিলাম। বিমানটির যাত্রার আগে যান্ত্রিক বিষয়টি ভালোভাবে দেখা উচিত ছিল। অনেকগুলো লোক এবারের মতো বেঁচে গেল।



নভোএয়ারের ফ্লাইটটি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে রানওয়েতে রয়েছে এমন তথ্য নিশ্চিত করে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের স্টেশন ম্যানেজার সুপ্লব কুমার ঘোষ জানান, যাত্রীরা নিরাপদে রয়েছে এবং তারা বিমানবন্দর ত্যাগ করেছে। বন্ধ থাকা রানওয়ে সচল করতে কাজ চলছে।


সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button