প্রবাস

সৌদিতে আর্থিক কর্মকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে দূতাবাস

সৌদিতে আর্থিক কর্মকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে দূতাবাস






সৌদি আরবে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের মধ্যে যারা দেশটিতে ব্যবসা, বিনিয়োগ বা আর্থিক কর্মকাণ্ডে জড়িত, তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদ। দূতাবাস জানিয়েছে, সৌদিতে বসবাসরত কোনো বিদেশি নাগরিকের দেশটির কোনো নাগরিকের সহায়তায় ব্যবসা, বিনিয়োগ বা আর্থিক কার্যক্রম চালানোর সরকারি বৈধতা নেই।



তাই সৌদি আরবে যাদের ব্যবসা, বিনিয়োগ বা আর্থিক কার্যক্রম রয়েছে তাদের আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধন শেষ করতে হবে।



সোমবার (২৪ আগস্ট) দিবাগত রাতে বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদ এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।



দূতাবাস জানায়, সম্প্রতি সৌদি সরকার ‘বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইন’ জারি করেছে। আইনের আর্টিকেল-৩ অনুযায়ী দেশটিতে বসবাসরত কোনো বিদেশি নাগরিক কোনো সৌদি নাগরিকের সহায়তায় ব্যবসা, বিনিয়োগ বা আর্থিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি সৌদি সরকার কর্তৃক অনুমোদন প্রাপ্ত নয়। এটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।



এই আইনের আওতায় সৌদি আরবে বসবাসরত সব বিদেশি নাগরিকের, যারা নিজ অথবা অন্য নামে সৌদি আরবে বিনিয়োগ, ব্যবসা বা কোনো আর্থিক কর্মকাণ্ডে জড়িত আছেন কিন্তু এ ধরনের আর্থিক কার্যক্রমের সরকারি বৈধতা নেই, তাদের নিবন্ধনের মেয়াদ ছয় মাস বাড়িয়ে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।



দূতাবাসের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, নতুন আইনের আর্টিকেল-৯ (১) অনুযায়ী যদি আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষ করতে ব্যর্থ হয়, তবে সৌদি সরকার কর্তৃক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ সময়ের মধ্যে কেউ নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ব্যর্থ হলে তাকে সর্বোচ্চ পাঁচ মিলিয়ন রিয়াল জরিমানা অথবা পাঁচ বছরের কারাদণ্ড এবং সমুদয় ব্যবসা ও সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা হবে।



এ অবস্থায় সৌদি আরবে বসবাসরত বাংলাদেশি যারা ব্যবসা, বিনিয়োগ বা আর্থিক কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত আছেন আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তাদের www.mc.gov.sa ওয়েবসাইটে নিবন্ধনের অনুরোধ জানানো হলো।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button