জাতীয়

“এতদিন প্রবাসীরা আমাদের দিয়েছেন, এখন আমরা তাদের দেবো”

“এতদিন প্রবাসীরা আমাদের দিয়েছেন, এখন আমরা তাদের দেবো”






প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এতদিন প্রবাসীরা আমাদের দিয়েছেন এখন আমরা তাদের দেবো। করোনার কারণে যারা দেশে ফিরে এসেছেন তারা যেন সম্মানজনক কোনো পেশায় যুক্ত হতে পারেন। কিংবা আরও উন্নত প্রশিক্ষণ নিয়ে আবারও বিদেশে ফিরে যেতে পারেন। এছাড়া নারীদের প্রশিক্ষণের জন্য আলাদা প্রকল্প না নিয়ে রাজস্ব খাতে নিয়মিত প্রশিক্ষণের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।



বুধবার (২৮ জুলাই) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে এমন নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে বৈঠক পরবর্তী ব্রিফিংয়ে বিষয়টি জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।






বিফ্রিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘রাস্তা নির্মাণ ও সম্প্রসারণে ওভারপাস, আন্ডারপাস ও ইউলুপ তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, রাস্তার কারণে যাতে যান ও মানুষের চলাচল বাধাগ্রস্ত না হয়। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে সড়ক ও জনপ্রশাসন বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।’



এম এ মান্নান বলেন, ‘এখন থেকে ব্রিজ বানাতে উচ্চতা ঠিক রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, আমাদের দেশ জোয়ার-ভাটার দেশ। তাই ব্রিজের উচ্চতা সঠিকভাবে রাখতে হবে। যাতে নৌ চলাচল বাধাগ্রস্ত না হয়। এজন্য নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে।



এছাড়া যেখানে সেখানে বালু মহাল না করার নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বৈধভাবে ব্যবস্থা করা হলেও যেখানে সেখানে বালু মহাল করা যাবে না। এছাড়া খাদ্য প্রক্রিয়াকরণের ক্ষেত্রে দুধ প্রক্রিয়াকরণের উদ্যোগ নিতে হবে। এছাড়া হারবাল মেডিসিনের ব্যবহার বাড়ানোর উদ্যোগ নিতে হবে।’



পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, ‘ব্রিজের উচ্চতা সঠিক রাখতে হবে। এটি বলার কারণ হচ্ছে, বসিলা ব্রিজ। এখন হয়তো সেটি ভেঙে ফেলতে হবে।’



এক প্রশ্নের জবাবে ড. শামসুল আলম বলেন, ‘দেশের দক্ষিণঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনর্নির্মাণ বা পুনর্বাসন প্রকল্পের আওতায় জরার্জীর্ণ ৮০৫টি লোহার ব্রিজ ভেঙে সেখানে আরসিসি বা পিসি গার্ডার সেতু নির্মাণ করা হবে। এছাড়া ১ হাজার ২৪৪টি লোহার ব্রিজ পুনর্নির্মাণ বা পুনর্বাসন করা হবে।’

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button